fbpx

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো – নতুনদের জন্য গাইডলাইন

how to learn freelancing
Freelancing

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো – নতুনদের জন্য গাইডলাইন

বর্তমান সময়ে অনেকেই ‘ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing)’ শব্দটার সাথে পরিচিত। কিন্তু অনেকেরই ‘ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) সম্পর্কে সঠিক ধারণা নেই। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা জানবো, ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) কি? ফ্রিল্যান্সিং কেন করবেন? ফ্রিল্যান্সিং যারা করেন, অর্থাৎ ফ্রিল্যান্সাররা (Freelancer) সাধারণত কি কি কাজ সমূহ করে থাকেন? ফ্রিল্যান্সিং কোথায় থেকে শিখবেন? এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে এমন কিছু এই আর্টিকেলে বলবো, যার মাধ্যমে আপনার ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে আপনার ভূল ধারণা গুলো দূর হবে।

চলুন শুরু করা যাক, প্রথমেই জানি- ফ্রিল্যান্সিং(Freelancing) কি?

Freelancing শব্দটার বাংলা অর্থ হলো- মুক্তপেশা। অর্থাৎ, কারো অধীনে না থেকে নিজের সুবিধামতো কাজ করাকেই ফ্রিল্যান্সিং(Freelancing) বলে। অন্যসব চাকরীর থেকে এই ফ্রিল্যান্সিং এর পার্থক্য হলো এখানে আপনি আপনার স্বাধীন মতো কাজ করতে পারবেন। আপনি মন চাইলে কাজ করবেন, না চাইলে করবেন না। এবং ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য যে আপনাকে অফিসেই যেতে হবে বিষয়টা এমন না। আপনি চাইলে ঘরে বসেই ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন। কিন্তু এখানে একটা বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যে, আপনি যদি কোন কাজ নেন, তাহলে অবশ্যই আপনাকে সেই কাজটা কমপ্লিট করে দিতে হবে।

Freelancing

যেমন ধরুন, আপনি কোন কোম্পানির কর্মকর্তা না হয়েও আপনি সেই কোম্পানির স্পেসিফিক কাজ গুলো করে দিতে পারেন। যিনি এই স্পেসিফিক কাজগুলো করে দেন বা ফ্রিল্যান্সিং(Freelancing) করেন, তাকেও ফ্রিল্যান্সার(Freelancer) বলে।

অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে- মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো? মোবাইল দিয়ে কি ফ্রিল্যান্সিং করা সম্ভব?

এখানে একটা বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যে, ফ্রিল্যান্সিং অনেক ধরনের হতে পারে। কিছু কিছু কাজ মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব। কিন্তু বেশির ভাগ কাজই মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব নয়। এবং আরেকটা বিষয়- ফ্রিল্যান্সিং কে আপনি যদি পেশা হিসেবে নিতে চান, তাহলে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং না করাই উত্তম। কারণ, যখন কাজ আসা শুরু হবে, তখন সব কিছু মোবাইলে করা সম্ভব হবে না।

ফ্রিল্যান্সিং কেন করবেন?

প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে মানুষের পেশার ধরনও পরিবর্তন হয়েছে। এখন মানুষ চাইলেও ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে পারে। এবং চাহিদা অনুযায়ী কেউ অন্য কোন কাজ করার পাশাপাশিও বাড়তি টাকা ইনকামের জন্য ফ্রিল্যান্সিং করতে পারে। আবার কারো যদি কাজের প্রেশার মনে হয়, তাহলে তাঁর যতটুক প্রয়োজন ততটুক সে ইনকাম করে পরিবার বা নিজের অন্য কোন কিছুর পেছনে ব্যয় করতে পারে। আর অনেকেই আছে, রেগুলার কাজ করতে করতে হাপিয়ে উঠে, তাদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং হতে পারে পছন্দনীয় পেশা।

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখবেন?

Freelancing training center

ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য প্রথমে আপনাকে পছন্দমত একটা বিষয় বাছাই করতে হবে। তারপর সেই বিষয়ের জন্য প্রশিক্ষণ নিতে হবে। এখন প্রশিক্ষণ নেয়ার জন্য আপনি বিভিন্ন Best Skill Development Training Center থেকেও ঐ বিষয়ের উপর কোর্স করতে পারেন অথবা আপনি গুগল, ইউটিউব থেকেও বিভিন্ন ভাবে শিখতে পারেন। তবে গুগল, ইউটিউবের থেকে আপনি যদি কোন ভালো ট্রেনিং সেন্টার থেকে কোন কোর্স করেন, তাহলে এটা আপনার জন্য ভালো হবে বলে আমি মনে করি। কারণ, গুগল, ইউটিউব থেকে দেখলে আপনি কম্পলিট গাইডলাইন পাবেন না এবং সেখান থেকে শিখলে আপনার সময়ও নষট হতে পারে। তাই, আপনার সময় এবং কম্পলিট এডভান্স কোর্সের কথা চিন্তা করে, আপনি কোন ভালো ইন্সটিটিউট থেকে কোর্স করলেই ভালো হবে বলে আশা করা যায়।

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ কি কি?

ফ্রিল্যান্সাররা বিভিন্ন ধরনের কাজ করে থাকে। নিচে কিছু জনপ্রিয় কাজের সম্পর্কে বিস্তারিত বলা হলোঃ

১. কন্টেন্ট রাইটিং (Content Writing)

content writing

আপনি বিভিন্ন কোম্পানির মার্কেটিং এর জন্য বিভিন্ন কন্টেন্ট লিখতে পারেন। যেমন তাদের বিভিন্ন পোডাক্ট, অফার বা কাস্টমার এর সাথে ইন্টার‍্যাকশন বাড়াতে হেল্প করে এমন লেখা লিখতে পারেন। আর কন্টেন্ট রাইটিং বলতে যে, শুধু আপনি কোন কোম্পানির মার্কেটিং প্রোডাক্টের জন্যই লিখবেন, বিষয়টা এমন না। আপনি চাইলে বিভিন্ন ইউটিউবের ভিডিওর জন্য স্ক্রিপ্টও লিখতে পারেন।

২. গ্রাফিক্স ডিজাইন (Graphics Design):

Graphics Design 1

বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ব্যবসা বা কোম্পানির প্রসারের জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইনারের জন্যপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। আপনি যদি একটা ফেসবুকে ছোট ব্যবসার ফেসবুক পেজও দেখেন, তাহলে খেয়াল করবেন, তাদের মার্কেটিং এর জন্য বিভিন্ন ইমেজ ডিজাইন করে পোস্ট করা হচ্ছে। এগুলো আসলে গ্রাফিক্স ডিজাইনাররাই করে। যে কোম্পানি যত বড় তারা গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের পিছনে তত ব্যয় করে। গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানার জন্য এই আর্টিকেলটা পড়তে পারেনঃ

কেন আপনি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হবেন 

৩. ওয়েব ইউআই ডিজাইন (Web UI Design):

web ui design

গ্রাফিক্স ডিজাইনের মতো ওয়েব ইউআই ডিজাইনের চাহিদাও দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা যে ওয়েব সাইট ভিজিট করি সেগুলো কেউ না কেউ ডিজাইন করে। যারা এই ওয়েব সাইট ডিজাইন করে, তাদেরকেই বলা হয়, ইউআই ডিজাইনার(UI Designer).

ইউআই ডিজাইন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানার জন্য 

৪. এফিলিয়েট মার্কেটিং(Affiliate marketing):

Affiliate marketing

এফিলিয়েট মার্কেটিং হলো একটা এডভারটাইসিং মডেল যাতে কোম্পানি এফিলিয়েট মার্কেটারদের Pay করে যাতে এফিলিয়েট মার্কেটাররা সেই কোম্পানির প্রোডাক্টগুলো মার্কেটিং করে। যারা প্যাসিভ ইনকাম নিয়ে ইন্টারেসটেড তাদের জন্য এফিলিয়েট মার্কেটিং হতে পারে অনেক পছন্দনীয় বিষয়।

৫. ওয়েব ডেভেলপমেন্ট (Web Development):

Web Development 1

ইউ ডিজাইনাররা যখন কোন ওয়েবসাইট ডিজাইন করে তখন সেই ওয়েবসাইটকে লাইভ বা ইন্টারনেট সার্ভারে এড করার জন্য ওয়েব ডেভেলপরাররা কাজ করে। ওয়েব ডেভেলপররা ওয়েব সাইট লাইভ করার জন্য যেসব কাজ করে থাকেন, তাকেই ওয়েব ডেভেলপমেন্ট বলে।

৬. সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (Search Engine Optimization- SEO):

SEO 1 2

প্রতিদিন অনেক ছবি, ভিডিও বা লেখা পাবলিশ হয়, কিন্তু আমরা যখন কিছু খুজতেই যাই তখন সব কেন আমাদের সামনে আসে না, কেন তখন সামনে শুধুমাত্র স্পেসিফিক Source থেক লেখা বা কন্টেন্ট গুলোই আসে? আমাদের সার্চ রেজাল্টে যাতে আমাদের কন্টেন্ট গুলোই প্রথমে শো করে বা ভিজিটররা যাতে আমাদের কন্টেন্টগুলো সহজেই খুজে পায়, এই কাজটাই করে হলো একজন Digital Marketer. আর যে কাজটা তিনি করেন তাঁর নাম হলো- সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা এসইও(SEO)

ফ্রিল্যান্সিং এর আরো জনপ্রিয় কাজগুলোর মধ্যে ভিডিও এডিটিং(Video Editing), App Development, Programming, Audio and Sounding Editing ও অন্যতম।

অর্থাৎ আমরা পরিশেষে বলতে পারি যে, ফ্রিল্যান্সিং হলো মুক্তোপেশা। যেখানে ব্যক্তি তাঁর পছন্দ মতো সময়ে এবং সামর্থনুযায়ী কাজের পরিমাণ নিয়ে কাজ করে। এবং ফ্রিল্যান্সিং এ সফলতা পাওয়ার জন্য সে যে বিষয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক প্রথমে তাকে সেই বিষয়ে Skill Development করতে হবে। এবং যদি কাজ নেয়া হয় তাহলে দায়িত্ব নিয়ে সেই কাজ শেষ করার মানুষিকতা থাকতে হবে।

ফ্রিল্যান্সিং(Freelancing) নিয়ে আরো কোন জিজ্ঞাসা থাকলে Pixency Academy এর ফেসবুক পেইজ Pixency Community তে পোস্ট করতে পারেন।

আপনি চাইলে Skill Development এর জন্য Pixency Academy এর কোর্সগুলো করতে পারেন। Pixency Academy সর্বদা তাঁর প্রতিটি স্টুডেন্টের সাপোর্ট দিতে প্রস্তুত।  পিক্সেন্সী একাডেমীর কোর্স গুলো সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানার জন্য ভিজিট করুনঃ pixencyacademy.com

 

 

Leave your thought here

Your email address will not be published.

Select the fields to be shown. Others will be hidden. Drag and drop to rearrange the order.
  • Image
  • SKU
  • Rating
  • Price
  • Stock
  • Availability
  • Add to cart
  • Description
  • Content
  • Weight
  • Dimensions
  • Additional information
  • Attributes
  • Custom attributes
  • Custom fields
Click outside to hide the compare bar
Compare
Wishlist 0
Open wishlist page Continue shopping