fbpx

ক্লায়েন্টরা কি ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের হায়ার করতে পছন্দ করে

what-kind-of-graphics-designers-do-clients-prefer-to-hire
Graphic Design

ক্লায়েন্টরা কি ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের হায়ার করতে পছন্দ করে

গ্রাফিক্স ডিজাইন তো অনেকেই পারে। তাহলে কেন একটা কোম্পানি বা ক্লায়েন্ট তাঁর কাজ যে কোন গ্রাফিক্স ডিজাইনারকেই দেয় না। যারা প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে বিভিন্ন জায়গায় কর্মরত আছেন অথবা বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন মার্কেটপ্লেসে বর্তমানে কাজ করছেন, আমরা যদি তাদের লক্ষ করি, তাহলে আমরা তাদের মাঝে এমন কিছু গুন লক্ষ করি, যার জন্য বলা যায় সে একজন সফল গ্রাফিক্স ডিজাইনার। আজকে আমরা গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের এমন কিছু বৈশিষ্ঠ্য নিয়ে কথা বলব যেসব বৈশিষ্ঠ্যের কারণে  গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের বিভিন্ন কোম্পানি বা ক্লায়েন্ট বেশি হায়ার করে।

১. প্রবলেম সলভিং স্কিলঃ

আপনি যে প্রফেশনেই থাকুন না কেন, আপনাকে প্রবলেম সলভিং স্কিলে দক্ষ হতে হবে। আপনাকে যে কাজগুলো দেয়া হবে, তা কিভাবে সহজে এবং কম সময়ে করা যায়, আপনাকে এসব বিষয়ে এক্সপার্ট হতে হবে। এবং আপনি যদি কোন প্রবলেমে পড়েন, তাহলে সেটা কিভাবে সমাধান করা যায় বা কার সাথে কথা বললে সেই সমস্যার সমাধান হতে পারে, এসব বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা থাকতে হবে।

২. টাইম ম্যানেজমেন্টঃ

সময়ের ব্যাপারে আপনার অবশ্যই সিরিয়াস থাকতে হবে। আপনার যদি কোন কাজ করতে একটু বেশি সময় লাগে তাহলে আপনি অবশ্যই অথরিটির কাছ থেকে পর্যাপ্ত সময় চেয়ে নিবেন। কোন কাজ ডেডলাইন মিস করা যাবে না।

৩. কমিউনিকেশন স্কিলঃ

কমিউনিকেশন স্কিল খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা স্কিল। আপনি যদি কোন ক্লায়েন্টের কাজ করেন অথবা কোন কোম্পানিতে কাজ করেন, তাহলে আপনার কাজগুলো ভালো করে তাদের কাছ থেকে বুঝে নিবেন। যারা বিভিন্ন গ্রাফিক্স ডিজাইন মার্কেটপ্লেসে কাজ করবেন, আপনারা আপনাদের English Speaking Skill উন্নত করবেন। কারণ, আগের ক্লায়েন্টরা লিখে মেসেজ করলেও বর্তমান ক্লায়েন্টরা সরাসরি ভিডিও কল করতে চায় এবং কিছু কিছু মার্কেটপ্লেস যেখানে ভিডিও কলের সিস্টেম রাখা হচ্ছে। টেক্সট মেসেজের জন্য প্রথম প্রথম Google Translate এর হেল্প নিতে পারেন। আর ইংলিশ স্পিকিং এর জন্য বিভিন্ন Android Mobile App এর ব্যবহার করতে পারেন। 

৪. গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যারঃ

যেকোন ডিজাইন করার পূর্বশর্ত হলো  সাধারণত যেসব সফটওয়্যার দিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করা হয় সেই সব সফটওয়্যারে দক্ষ হওয়া। কারণ, আপনি কোন কাজ যেভাবে ভাবতেছেন, আপনি যদি সফটওয়্যার ভালো করে চালাতে না পারেন, তাহলে আপনার ভাবনা অনুযায়ী কাজ করতে পারবেন না। এবং কিছু কিছু কাজ আছে যেগুলোর জন্য নির্দিষ্ট কিছু সফটওয়্যারই ব্যবহার হয়ে থাকে যেমনঃ লোগো ডিজাইনের জন্য Adobe Illustrator, Magazine Design এর জন্য Adobe Indesign . তাই গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যারে অবশ্যই দক্ষ হতে হবে এবং নতুন কোন সফটওয়্যার আসলে দ্রুত সেই সফটওয়্যার শেখার Ability ও থাকতে হবে।

৫. গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রিন্সিপালঃ

গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রিন্সিপাল সম্পর্কে ডিটেইলস জ্ঞান থাকতে হবে। কোন কালার দিয়ে কি বুঝায়, কোন টাইপোগ্রাফি কখন ব্যবহার হয়, কোন ধরনের ইমেজ কোন ধরনের ডিজাইনে ব্যবহার হয়ে থাকে, এসব বিষয় সহ গ্রাফিক্স ডিজাইনের অন্য সব প্রিন্সিপাল সম্পর্কে অবশ্যই ভালো মত ধারণা থাকতে হবে এবং ডিজাইন ট্রেন্ড সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

মোটকথা বিভিন্ন কোম্পানি এবং ক্লায়েন্ট আসলে সেসব গ্রাফিক্স ডিজাইনারদেরই বেশি পছন্দ করে যারা কথা ও কাজে বিশ্বাসী হতে পারে। ক্লায়েন্ট যদি আপনাকে একটা কাজ দেয়, আপনার অবশ্যই তাঁর কাজটা পারদর্শীতার সাথে করে দিতে হবে। যদি আপনি না পারেন, তাহলে তাকে সুন্দর করে বুঝিয়ে আপনার সমস্যার কথা বলবেন। এমন কোন কাজ নিবেন না যা আপনি পারেন না। আপনার যেমন সময়ের মূল্য আছে, তেমনি ভাবে ক্লায়েন্টের সময়েরও মূল্য আছে। তাই আপনি ক্লায়েন্টের কাছে সৎ থাকবেন। তাহলেই আপনি হবেন সেই ধরনের গ্রাফিক্স ডিজাইনার যাদেরকে ক্লায়েন্টরা হায়ার করতে বেশি পছন্দ করে।

Leave your thought here

Your email address will not be published.

Select the fields to be shown. Others will be hidden. Drag and drop to rearrange the order.
  • Image
  • SKU
  • Rating
  • Price
  • Stock
  • Availability
  • Add to cart
  • Description
  • Content
  • Weight
  • Dimensions
  • Additional information
  • Attributes
  • Custom attributes
  • Custom fields
Click outside to hide the compare bar
Compare
Wishlist 0
Open wishlist page Continue shopping